এই অভ্যাসগুলি আজই ছাড়ুন, আপনার টাকা পয়সা আসার বাঁধা এই অভ্যাস! আজই ছাড়ুন

কথায় বলে ‘অর্থই অনর্থ্যের মূল’ তবুও ভালোভাবে জীবন কাটাতে আমাদের প্রতিনিয়ত অর্থের প্রয়োজন।অর্থ ছাড়া যেনো আমরা মাঝিহীন নৌকা! কোনো কাজই সম্ভব হয়না অর্থ ছাড়া, কথায় এই কারনেই হয়তো বলে যার এ পৃথিবীতে টাকা আছে তার সব আছে, আর যার টাকা নেই তার এজীবনে কিছুই নয়! কথাটা হয়তো আপেক্ষিক সত্যি ।

আমরা সকলেই হয়তো এই রূঢ় বাস্তবতাকে মেনে নিতে পারবো যে টাকা ছাড়া ভালোবাসাও হয়না, হ্যা এটাই সত্যি! যার টাকা আছে তাকে সবাই ভালোবাসে, আর যার টাকা নেই তাকে দেখার মতো স্বয়ং ভগবান ছাড়া আর কেউ নেই। আমাদের জীবনে চলার পথে প্রতিনিয়ত আমাদের টাকার প্রয়োজন । অর্থই ইচ্ছে পূরনের চাবিকাঠি ।অর্থবান মানুষ দেখবেন সমাজে একটা আলাদা গুরুত্ব পায়।

কিন্তু চাইলেই কি আমরা সকলে টাকা রোজগার করতে পারি? তার জন্য লাগে কঠোর পরিশ্রম! যেটা একদম প্রথম থেকে লাগে, এছাড়াও আমাদের জীবনযাত্রায় এমন কিছু রোজের অভ্যাস আমরা করে ফেলেছি যেগুলো আমাদের ওপর নেগেটিভ শক্তির প্রভাব বাড়িয়ে দেয়, ফলে আমাদের সামনে বাঁধা হয়ে দাড়ায় রোজগার জিনিসটা। ক্ষমতা ও যোগ্যতা থাকলেই অনেকে ছেড়া কাথায় শুয়ে লাখ টাকার স্বপ্ন সত্যি করে ফেলে।

আমাদের নিত্য রোজের কিছু অভ্যাস আমাদের অর্থ রোজগারের প্রতি বাধা হয়ে দাড়াচ্ছে, নিজের অজান্তেই আমাদের কিছু কিছু খারাপ অভ্যাস গড়ে তুলে আমরা কি অশুভ শক্তির প্রভাব বাড়িয়়ে ফেলছি? যার ফলে ধনলক্ষী আমাদের ধারেকাছেও ঘেসতে পারছেনা? আসুন জেনে নেই সেগুলো কি?

1. সকালে স্নান করার পর আমরা আমাদের বাথরুম নোংরা করে রাখি, আমরা এই স্নানকে কখনও যথাযথ সম্মান দেইনা, শাস্ত্রে রয়েছে যে আমাদের বাথরুম নোংরা থাকলে তা আমাদের রাশিতে চন্দ্রের সাথে মিলিত করে খারাপ প্রভাব সৃষ্টি করে।তাই প্রতিদিন বাথরুম ধুয়ে পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখুন।

2. ভাত বা কিছু খাবার পর কিছু অবশিষ্ট খাবার আমরা খাবার প্লেটেই ফেলে রাখি, পরে সেটি ফেলে দেওয়া হয়, কিন্তু মোটেই এই কাজটি করবেন না, এতে মা লক্ষী প্রচন্ড রাগ করেন, কোনো খাবার জিনিসই মা লক্ষী, তাকে কখনও ফেলে দেবেন না বা অপচয় করবেন না। প্রয়োজনে অল্প খাবার প্লেটে নিন, পরে লাগলে আবার নিন, কিন্তু নষ্ট করবেন না।

3. আমরা মা বোনেরা অনেকেই খাবার পর খাবার থালা দীর্ঘক্ষণ রেখে দেই, তারপর পরে কাজের লোক এসে অনেক পরে সেই বাসন মাজে, কিন্তু এটা ভুলেও কখনও করবেন না ,এতে মা অন্নপূর্ণা আপনার ও আপনার পরিবারের ওপর রুষ্ট হন, তাতে আপনার আর্থিক জগতে প্রভাব পরবে, তাই ভুলেও এই কাজটি করবেন না। শাস্ত্র বলছে এতে আপনার ওপর সূর্য ও চন্দ্রের ওপর খারাপ প্রভাব পরে।

4. প্রতিদিন নিজের বিছানা পরিস্কার করুন, নিজের বিছানা ঘুম থেকে উঠে পরিস্কার করে রাখবেন ও পারলে বিকেলে একবার পরিস্কার করে রাখুন।বৈদিক শাস্ত্রমতে নিজের বিছানা ও শোবার ঘর সবসময় পরিস্কার রাখলে মা লক্ষী আপনার ঘরে পা রাখে। এবং রাতেও বাসি বিছানায় শোবেন না, ভালোকরে পরিস্কার করে তারপর শোবেন, এতে আপনার রাশিতে খারাপ প্রভাব পরবে।

5. যত্রতত্র থুথু ফেলবেন না ভুলেও, এই খারাপ অভ্যাসটা প্রায় সকলের মধ্যেই আছে, কিন্তু এই অভ্যাসটা পারলে আজই ত্যাগ করুন, এই বদ অভ্যাস যেমন আপনার আশেপাশের এলাকাকে নোংরা রাখবে ঠিক তেমনই আপনার ঘরের ধনলক্ষীকেও দূরে সরিয়ে রাখবে।

6. সন্ধার পর ঘরবাড়ি মোছা বা ঝাট দেওয়া থেকে বিরত থাকুন, ভুলেও রাতে ঝাড়ু হাতেই নেবেন না, এতে ঘরের লক্ষী সন্ধাবেলা আপনার বাড়ি থেকে বিদায় নেবেন।

এই কয়েকটি অভ্যাস আজই ত্যাগ করুন, দেখবেন আপনার আর্থিক জগতে অনেকটা পরিবর্তন এসেছে, আর একটা অনুরোধ দয়া করে এটি শেয়ার করে সকলকে জানানোর জন্য সহযোগিতা করবেন, ধন্যবাদ

Check Also

চুলপড়া রোধে বেশ কার্যকরী ওষুধ পেয়ারা পাতা

চুলপড়া সমস্যা থেকে রক্ষা পেতে সবাই কত কিছুই না ব্যবহার করে থাকে। অনেকেই ঝরে পড়া ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *