Monday , October 3 2022

সোনা সোনা রোদ উঠল হেঁসে, সবুজ প্রকৃতির মাঝে অসাধারন নাচ যুবতীর, প্রশংসায় নেটাগরিকরা !

জিৎ-শ্রাবন্তী অভিনীত জনপ্রিয় বাংলা সিনেমা “ওয়ান্টেড”এর গানে গ্রাম্য পরিবেশে দুর্দান্ত ডান্স পারফরম্যান্স ডেলিভার করে ভাইরাল হলেন এক যুবতী। আশেপাশের গ্রাম্য খোলামেলা পরিবেশের সবুজকে সাক্ষী রেখে এদিন যুবতীটি অসাধারণ নৃত্য পরিবেশন করেছেন। সামাজিক মাধ্যমে যা শেয়ার হতেই হয়ে গিয়েছে ভাইরাল। দর্শকেরা যুবতীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ!

“ফোটা ফোটা বৃষ্টি শেষে সোনা সোনা রোদ উঠল হেসে” নামক এই গানে এদিন যুবতীটি মানানসই মেকআপ ও গেট আপে পারফরম্যান্স দিয়েছেন। এদিন ভাইরাল এই ভিডিওটিতে যুবতীটির পরনে ছিল হলুদ রঙের স্লিভলেস টপ সাথে বটম হিসাবে পড়েছিলেন প্রিন্টেড লং স্কার্ট। সম্পূর্ণ লুকটিকে কমপ্লিট করতে এদিন মিনিমাল মেকআপ এবং অক্সিডাইস জুয়েলারি সাজে সুসজ্জিত হয়েছিলেন যুবতীটি।

“ডানসিং স্টার মৌ” নামক ইউটিউব চ্যানেল থেকে মাত্র একদিন আগে শেয়ার করা এই ভিডিওটিতে ইতিমধ্যেই 10,000 এর বেশী ভিউজ এসেছে। সাথে মৌ নামক এই নৃত্যশিল্পীর শৈলীর প্রশংসায় কমেন্ট বক্সে জানান মন্তব্য রয়েছেই। কেউ কেউ আবার যুবতিটির অসাধারণ সৌন্দর্যের প্রশংসা “লুকিং সো বিউটিফুল”,”গর্জিয়াস” ইত্যাদি নানান মন্তব্য করেছেন। এককথায় জনপ্রিয় বাংলা গানের তালে যুবতীটির এমন উদ্যম এক্সপ্রেশনের সাথে নাচ সামাজিক মাধ্যমে হটকেক।

বলাবাহুল্য,তৎকালীন সময়ে “ওয়ান্টেড” সিনেমার পাশাপাশি উক্ত গানটিও যথেষ্ট জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল। শিশুশিল্পী হিসেবে এই গানে গলা দিয়েছিলেন অনন্যা ওয়াদকার। এছাড়াও পুরুষকন্ঠ ও নারীকন্ঠে শোনা গিয়েছিল যথাক্রমে রাজেশ রায় ও পৃথা মজুমদার এর গলা। এককথায় যুবতীটি তার অসাধারণ ডান্স পারফরম্যান্স এর মাধ্যমে উক্ত গানে তার অসাধারণ ডান্স পারফরম্যান্স এর মাধ্যমে 90 দশকের মানুষদের ফিরিয়ে দিয়েছেন তাদের চাইল্ডহুড নস্টালজিয়া!

 

Check Also

‘সত্যিই বলছি আর করবো না’, গলা জড়িয়ে ধরে চুমু দিয়ে শিক্ষিকার রাগ ভাঙাতে আপ্রাণ আর্জি খুদে ছাত্রের, ভাইরাল ভিডিও

প্রতিদিন সোশ্যাল মিডিয়ায় আমরা হাজার ধরনের ভিডিও ভাইরাল হতে দেখি চোখের সামনে। কখনো থাকে নাচ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.