Saturday , January 28 2023

শিব পুজোয় দূর হবে সব কষ্ট ! শ্রাবণ মাসে মানুন সামান্য কয়েকটি নিয়ম !

আষাঢ় মাস শেষ হতে চলল, আর কয়েকদিন পরেই শ্রাবণ মাস। এই মাসকে বলা হয় ভগবান শিবের মাস। দেবাদিদেবের ভক্তগণ প্রায় সারা বছর অপেক্ষা করেন এই একটি মাসের জন্য । এই মাসের প্রত্যেকটি সোমবার শিবের অত্যন্ত প্রিয়। বিশ্বাস করা হয়, শ্রাবণ মাসের সোমবারে দেবাদিদেবের নামে উপবাস করে সমস্ত নিয়ম মানলে মনস্কামনা পূরণ হয়। চলতি বছরে শ্রাবণ মাসে পাঁচটি সোমবার পড়েছে। জ্যোতিষচর্চা, আধ্যাত্মিক এবং পুরাণ অনুযায়ী শ্রাবণ মাসের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। এই মাসটিকে শিবের উদ্দেশ্যে উৎসর্গ করা হয়ে থাকে। ২০২২ এর পঞ্জিকা অনুযায়ী শ্রাবণ মাস শুরু হচ্ছে ১৮ই জুলাই থেকে এবং শেষ হচ্ছে ১৭ই আগস্ট। এই সময়কালের মধ্যে পাবেন পাঁচটি সোমবার।

১৮ জুলাই – প্রথম সোমবার
২৫ জুলাই – দ্বিতীয় সোমবার
১ আগস্ট- তৃতীয় সোমবার
৮ আগস্ট- চতুর্থ সোমবার
১৫ আগস্ট- পঞ্চম সোমবার

চলতি বছরের শ্রাবণ মাসের গুরুত্ব আরো বৃদ্ধি পাবে, কারণ জ্যোতিষ গণনা অনুযায়ী এই মাস শুরু হবে বিষ্কুম্ভ যোগ এবং প্রীতি যোগে। বিশ্বাস অনুযায়ী , যে ব্যক্তিগণ এই যোগে জন্মগ্রহণ করেন তারা ভাগ্যবান হন এবং উত্তম গুণের কারণে জীবনের বহু কাজে সফলতা পান।

এই শ্রাবণ মাসের সঙ্গে জুড়ে রয়েছে এক বিশেষ পুরাণ কাহিনী। এই মাসেই নাকি সমুদ্র মন্থন করেছিলেন দেবতা এবং দানবেরা। সেই মন্থন থেকে উঠে এসেছিল হলাহল বিষ। যা পান করে মহাদেব সমগ্র বিশ্বকে রক্ষা করেন, আর তিনি হয়ে যান নীলকন্ঠ। বিষের কারণে তাঁর কন্ঠ নীল হয়ে গিয়েছিল, তাই দেবাদিদেবের কষ্ট কমাতে ভক্তরা তাঁর মাথায় গঙ্গা জল ঢালেন। এই কারণে প্রতিবছর শ্রাবণ মাসে দেবাদিদেবের মাথায় গঙ্গাজল, ডাবের জল, দুধ প্রভৃতি অর্পণ করা হয়।

তবে শ্রাবণ মাসে বেশ কয়েকটি নিয়ম মেনে চলা জরুরি। কয়েকটি কাজ ভুলেও করবেন না।

•শ্রাবণ মাসের সোমবারে সূর্যোদয় থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত যারা উপবাস রাখবেন তারা ফলমূল জাতীয় খাবার খেতে পারবেন, কিন্তু এড়িয়ে চলবেন গম, চাল, ডাল জাতীয় খাবার।

•এই সময় মদ্যপান এবং ধূমপান থেকে দূরে থাকুন।

•এই মাস হল দান করার জন্য মোক্ষম সময়। নিজের সামর্থ্য মত অবশ্যই অসহায় ব্যক্তিদের কিছু দান করুন।

•দেবাদিদেবের অভিষেক করার সময় চন্দন ব্যবহার করুন, হলুদ এবং সিঁদুর ব্যবহার এড়িয়ে চলুন।

•এই সোমবার গুলিতে ব্রহ্ম মুহূর্তের সময় অর্থাৎ সূর্যোদয়ের দু’ঘণ্টা আগেই ঘুম থেকে উঠে স্নান সেরে পরিষ্কার বস্ত্র পরিধান করুন। তারপর কোন শান্ত জায়গায় গিয়ে ভগবানের নামের সংকল্প করে পুজো করুন।

খবরে থাকুন, ফলো করুন আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায়

Check Also

মুসলিম মহিলার হাতে শক্তির দেবীর আরাধনা, কালীপুজো ঘিরে এগাঁয়ে উন্মাদনা তুঙ্গে

এক মুসলিম মহিলার হাতে পূজিত হন মা কালী। তাঁর হাতেই এপুজোর শুরু। বছরের পর বছর ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.