রূপচর্চায় লেবুর গুনাগুন.

খাবারের সময় লেবুর ব্যবহার আমরা কে না করি? জানেন কি লেবু হল রূপচর্চার একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপাদান? না জেনে থাকলে আজই জেনে নিন লেবুর গুনাগুণ :

১। শরীরের ক্লান্তি দূর করতে প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে একগ্লাস কুসুম গরম পানিতে অর্ধেক লেবুর রস একটু মধু বা চিনি দিয়ে মিশিয়ে খেতে পারেন । দারুন ফল পাবেন। ত্বকের উজ্জ্বলতা তো বৃদ্ধি পাবেই সাথে চোখ মুখের বিবর্ণতা চলে যাবে।

২। মুখের সৌন্দর্য বাড়ানোর জন্য এক টুকরো লেবুর রস দু’চামচ দুধের সাথে মিশিয়ে তুলার সাহায্যে মুখে প্রলেপ লাগাতে হবে । ১৫-২০ মিনিট এই প্রলেপ রাখার পর ধুঁয়ে ফেলতে হবে । তারপর দেখুন পরিবর্তন !

৩। লেবুর রস , গোলাপজল এবং শসার রস সমপরিমাণে মিশিয়ে ঘাড় , গলা এবং দেহের অন্যান্য অংশে মেখে ১৫-২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন । দেখবেন শুষ্ক ও রুক্ষ ত্বকে নমনীয়তা আসবে ।

৪। তেলতেলে ত্বকের জন্য ডিমের সাদা অংশের সাথে অর্ধেকটা লেবুর রস এবং কুসুম গরম পানি পেস্টের মতো করে মিশিয়ে প্রলেপটি আস্তে আস্তে ত্বকে মাখুন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। অনেক উপকার পাবেন ।

৫। লেবুর রস ও শসার রস সমপরিমাণে মিশিয়ে ত্বকে লাগিয়ে দেখুন। ত্বকের তেলতেলে ভাব অল্পদিনেই কমে যাবে।

৬। হাতের কনুই, হাঁটু, পায়ের গোড়ালি এসব জায়গার ময়লা দূর করতে আধা টুকরো লেবু নিয়ে এইসব জায়গাগুলোতে ভাল করে ঘষে নিন। ময়লা চলে যাবে এবং জায়গাগুলো ঝকঝকে হবে।

৭। হাত-পা কোমল মসৃণ করতে লেবুর রসের সাথে সামান্য পরিমানে চিনি মিশিয়ে মালিশ করে ১০ মিনিট পর ধুয়ে নিন কুসুম গরম পানি দিয়ে।

৮। হাতের কড়া দূর করতে গোলাপজলের সাথে লেবুর রস মিশিয়ে হাতের পাতায় মাখুন।

৯। চুলের পরিচর্যার জন্য লেবু অনেক উপকারি। চুলের গোড়া পরিষ্কার ও শক্ত এবং চুলের খুশকি দূর করতে লেবুর রস চুলে দিয়ে ভালমত মাসাজ করুন।

লেবু সহজলভ্য হওয়ায় এইসব কাজ আমরা খুব সহজেই ঘরে বসে করে নিজেদের পরিচর্যা করতে পারি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *