Tuesday , December 6 2022

রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে বিতর্কিত পোস্ট, আইনি নোটিশ গেল নোবেলের কাছে

খোদ বিশ্বকবি সম্পর্কে বিতর্কিত পোস্ট! তারই জেরে গায়ক মাইনুল আহসান নোবেলকে আইনি নোটিশ পাঠালেন মিঠুন বিশ্বাস নামে চট্টগ্রামের এক আইনজীবী। রবিবার পাঠানো ওই নোটিশে নোবেলকে সাত দিন সময় দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে তাকে ক্ষমা চাইতে হবে। নয়তো ডিজিটাল আইনে কড়া ব্যবস্থা। এমনটাই উল্লেখ আছে ওই নোটিশে।

গত ১০ আগস্ট রাতে ফেসবুকে দেওয়া এক পোস্টে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সাহিত্যচর্চা বয়কটের দাবি জানান নোবেল। এমনকি, বিশ্বকবিকে ব্রিটিশদের চাটুকার বলে কটাক্ষও করেন।

নোবেল লেখেন, ‘রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এবং তাঁর রাবীন্দ্রিক সাহিত্যচর্চা অবিলম্বে বাংলাদেশ থেকে বয়কট করা হোক। আমাদের জাতীয় কবি নজরুল! বিদ্রোহী কবি; যখন আমাদের অধিকার আদায়ে সক্রিয় ছিলেন। রোজ রোজ ব্রিটিশদের কাছে কারাবন্দি হতেন। কনডেম সেলে টর্চারের শিকার হচ্ছিলেন। তখন ব্রিটিশদের চাটুকারিতা করে সো-কল্ড বিশ্বকবি বিন্দাস আমাদের বাপ-দাদার রক্ত চুষে খাচ্ছিল।’

এই পোস্টের তীব্র সমালোচনা করেন বহু নেটিজেন। তারও আগে গত ৩০ জুলাই রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে আরও একটা বিতর্কিত পোস্ট দেন নোবেল। সম্প্রতি হিরো আলমকে ডিবি কার্যালয়ে ডেকে নিয়ে বিকৃত করে নজরুল ও রবীন্দ্রসংগীত গাইতে নিষেধ করা হয়। তার কাছ থেকে মুচলেকাও নেওয়া হয়।

সেই প্রসঙ্গ টেনে নোবেল তার ফেসবুকে সেদিন লেখেন, ‘রবীন্দ্রনাথ-নজরুল তো আর নবী কিংবা দেবতা না যে তাদের গান প্যারোডি আকারে গাওয়া যাবে না! রবীন্দ্রনাথ এদেশের কবিদের মূল্যায়ন করে যাই নাই। তারে নিয়ে যে এদেশে চর্চা হয় এটাই রবীন্দ্রনাথের জন্য বেশি। বাংলাদেশের সাহিত্যে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের অবদান নিতান্তই কম বা নেই বললেই চলে।’

এখানেই শেষ নয়। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরকে নিয়ে এর আগেও বিতর্কে জড়িয়েছেন নোবেল। ‘সারেগামাপা’ অনুষ্ঠানের প্রতিযোগী থাকাকালে কলকাতার একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, ‘রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের রচিত ‘আমার সোনার বাংলা’ গানটির থেকে প্রিন্স মাহমুদের লেখা ‘আমার সোনার বাংলা’ গানটি বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত হিসেবে বেশি উপযুক্ত।’

নোবেলের ওই বক্তব্য প্রচার হওয়ার পরই দুই বাংলায় বিতর্কের ঝড় ওঠে। শুরু হয় সমালোচনা। ওপার বাংলার গায়িকা ইমন চক্রবর্তী তো নোবেলকে থাপড়াতে পর্যন্ত চেয়েছিলেন। সেই বিতর্কের ঘাঁ এখনো শুকায়নি। তারই মাঝে রবীন্দ্রনাথকে নিয়ে নোবেলের ধারাবাহিক বিতর্কিত মন্তব্য। যার জেরে আইনি নোটিশ। এবার এই নোটিশের জবাবে নোবেল কী করেন, সেটাই দেখার।

Check Also

‘TRP বাড়াতে এসব বন্ধ করুন’, ‘দিদি নম্বর 1’র বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন প্রতিযোগীর প্রাক্তন স্বামী

গত ১০ বছর ধরে সম্প্রচারিত হচ্ছে টেলিভিশনের অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘দিদি নাম্বার ওয়ান’। বাঙলার ঘরে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.