Sunday , July 3 2022

ভুলেও কোনদিন সন্তানদের সামনে এই 7 টি কাজ করবেন না!

একটা ছোট্ট বাচ্চা ছেলের শিক্ষক হচ্ছেন তার বাবা-মা । প্রাথমিক শিক্ষা শুরু হয় বাড়ি থেকে তারপরে পাঠ্যপুস্তকে শিক্ষা শুরু হয় স্কুল জীবন থেকে ।কিন্তু বাড়িতে যদি শিক্ষার অভাব থেকে যায় তাহলে পরিবেশের সাথে সেই ছেলে কিংবা মেয়ে কিভাবে বড় হয়ে উঠতে পারবে সে ব্যাপারে থেকে যায় পরবর্তীকালে গভীর প্রশ্ন ।

তাই প্রাথমিক শিক্ষা অত্যন্ত নিষ্ঠার সাথে এবং সঠিকভাবে শুরু হওয়া প্রয়োজন রয়েছে । কি কি কাজ বাচ্চা ছেলে মেয়েদের সামনে করবেন না তা অতি অবশ্যই জানা দরকার একজন অভিভাবক হিসেবে আপনার জেনে নিন সেই সমস্ত তথ্য গু-লি।

টিভি বা মোবাইল কম ব্যবহার করা :- আপনি যদি আপনার বাচ্চা সামনে টিভি কিংবা মোবাইলে অতিরিক্ত পরিমাণে বেশি ব্যবহার করেন বা তাদেরকে সময় না দেন তাহলে কিন্তু পরবর্তী ক্ষেত্রে তারা এই ধরনের অভ্যাস অভ্যস্ত হয়ে উঠবে । বাচ্চা যদি টিভি কিংবা মোবাইলের অভ্যস্ত হয়ে ওঠেন তাহলে কিন্তু আগামী দিনে চরম বিপদ আসতে চলেছে আপনার বাচ্চার জন্য ।

বাজে মন্তব্য না করা :- কোনো ব্যক্তি সম্পর্কে শিশুদের সামনে বাজে মন্তব্য করা যাবে না। কারও গায়ের রঙ, রূপ, শরীর বা খারাপ গুণাবলি নিয়ে মন্তব্য করা যাবে না। এটি করলে তারাও এই অভ্যাস পেয়ে বসবে।

ভদ্রতা বজায় রাখা:- আপনি আপনার বাচ্চার সামনে এমন কোন কাজ কর্ম করবেন না যাতে তাদের জীবনে সেটা খারাপ প্রভাব ফেলে । স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে অতি অবশ্যই ভদ্রতা বজায় রাখুন বিশেষ করে যখন আপনার বাচ্চা আপনার সামনে থাকবে।

চিৎকার না করা:- রেগে গেলে বা খুব বিরক্তের সময় আমরা চিৎকার চেচামেচি করি। যেটির প্রভাব শিশুদের ওপর পড়ে। এমন পরিস্থিতি আসলে মেজাজ নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। আর যদি শিশুদের সামনে এমনটি করা হয়, তা হলে তাদের মনে হবে যে এমনটি করা ঠিক কাজ।

খাবার নষ্ট না করা:- আপনি আপনার বাচ্চাদেরকে তখনই বোঝাতে পারবেন খাবারের মূল্য জীবনে ঠিক কতখানি যখন আপনি তাদের সামনে খাবার নষ্ট করবেন না । আপনি যদি আপনার বাচ্চার সামনে প্রতিনিয়ত খাবার নষ্ট করতে থাকেন তাহলে সেখান থেকে সে শিক্ষা পাবে এবং এই শিক্ষা মোটেও জীবনে ভালো শিক্ষা হতে পারে না ।

কারো সাথে খারাপ ব্যবহার না করা:- মা-বাবা তাদের পরিবারের অন্য কোনো সদস্য, প্রতিবেশী বা বন্ধুর সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করে থাকলে, শিশুদের ওপর সেটির বাজে প্রভাব পড়বে। কারও সঙ্গে মতের অমিল হলে বা কাউকে অপছন্দ করলেও শিশুদের সামনে তাদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করা যাবে না। সেটি করলে শিশুরাও সেই ব্যক্তিকে কোনো সময় অপমান করতে পারে বা খারাপ ব্যবহার করতে পারে।

Check Also

রাগ নিয়ন্ত্রণ করার কিছু সহজ উপায়

রাগলে পৃথিবী ওলটপালট করে দিতে পারার ক্ষমতা অনেকেই রাখেন। তবে যিনি রাগেন, ক্ষতিটা তারই হয়। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.