Sunday , September 19 2021

বেল পাতায় নাকি লক্ষ্মীর বাস! শিব ছাড়া বেল পাতায় তুষ্ট হন লক্ষ্মীও !

বেলপাতা মহাদেবের অত্যন্ত প্রিয়। বেলপাতা ছাড়া শিবের পুজো হয় না। তবে মহাদেব ছাড়া বেলপাতা লক্ষ্মীরও খুবই প্রিয়। বেলপাতা অর্পণ করলে তুষ্ট হন তিনি। হিন্দু ধর্ম বেলের বিশেষ গুরুত্ব আছে বলে বেলকে শ্রীফল বলা হয়।

হাইলাইটস

* প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী বিল্ববৃক্ষে লক্ষ্মীর বাস।
* যে বাড়িতে বেলপাতার গাছ লাগানো থাকে, সেখানে লক্ষ্মীর বাস হয়।

বেলপাতা শিবের অত্যন্ত প্রিয়। বেলপাতা ছাড়া শিবের আরাধনা পূর্ণ হয় না। হিন্দু ধর্মে বেলপাতা শিব পুজোর প্রধান অংশ। কিন্তু শিবের প্রিয় এই বেলপাতা আবার লক্ষ্মীকে প্রসন্ন করতে পারে তা কী জানেন? জেনে নিন শিবকে বেলপাতা অর্পণের লাভ এবং কী ভাবে বেলপাতা লক্ষ্মীকে প্রসন্ন করতে পারে—

১. প্রচলিত আছে যে, শিবকে বেলপাতা অর্পণ করলে লক্ষ্মী লাভ হয়। কারণ বেলপাতার শিকড়ে স্বয়ং লক্ষ্মীর বাস। বেলগাছকে আবার শ্রীবৃক্ষও বলা হয়। এই গাছের পুজো করলে অর্থ লাভ করা যায়।

২. বেলগাছের গোড়ায় ঘি, অন্ন, পায়েস বা মিষ্টি অর্পণ করলে দারিদ্র দূর হয় এবং ব্যক্তির জীবনে ধনের অভাব থাকে না।

৩. বেলগাছের শিকড়ের বা গোড়ার পুজো করলে সমস্ত পাপ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়।

৪. সন্তানসুখ লাভের জন্য শিবলিঙ্গে এই গাছের ফুল, ধুতুরা, আকন্দ ও বেলপাতা অর্পণ করার পর গাছের শিকড়ের পুজো করা উচিত।

৫. বেলপাতার গাছের শিকড়ের জল নিজের মাথায় লাগালে সমস্ত তীর্থের পুণ্য লাভ করা যায়।

৬. বেলপাতার শিকড় জলে ফুটিয়ে ঔষধ হিসেবে ব্যবহার করা হয়। নানান রোগ নিরাময়ে এটি সাহায্য করে।

৭. বেলপাতা খেলে ত্রিদোষী অর্থাৎ, বাত, পিত্ত, কফের সমস্যা দূর হয়। পাশাপাশি হজম সমস্যা থেকেও রক্ষা পাওয়া যায়।

৮. বেলপাতা ত্বকের রোগ উপশমে সাহায্য করে এবং মধুমেহ নিয়ন্ত্রণে কার্যকরী। পাশাপাশি এটি মনকেও সতেজ রাখে।

৯. হিন্দু ধর্মে বেলপাতা শিবকে অর্পণ করা হয়। এর ফলে শিব প্রসন্ন হন।

১০. যে ব্যক্তি শিব-পার্বতীর পুজোয় বেলপাতা অর্পণ করেন তিনি মহাদেব ও পার্বতী উভয়ের আশীর্বাদ লাভ করেন।

১১. প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী বিল্ববৃক্ষে লক্ষ্মীর বাস। যে বাড়িতে বেলপাতার গাছ লাগানো থাকে, সেখানে লক্ষ্মীর বাস হয়।

১২. বেলপাতাকে শিবের তিন নেত্রের প্রতীক মনে করা হয়। এই তিনটি চোখ ভূত, ভবিষ্যৎ এবং বর্তমান দেখে থাকে। মহাশিবরাত্রির দিনে শিবকে বেলপাতা অর্পণ করলে সমৃদ্ধি, শান্তি ও শীতলতা লাভ করা যায়।

উল্লেখ্য, চতুর্থী, অষ্টমী, নবমী, চতুর্দশী, অমাবস্যা ও যে কোনও মাসের সংক্রান্তিতে বেলপাতা তোলা উচিত নয়।

বেলপাতা অর্পণের মন্ত্র

নমো বিল্ল্মিনে চ কবচিনে চ নমো বর্ম্মিণে চ বরূথিনে চ

নমঃ শ্রুতায় চ শ্রুতসেনায় চ নমো দুন্দুষ্ভ্যায় চা হনন্ন্যায় চ নমো ঘৃশ্ণবে।।

দর্শনং বিল্বপত্রস্য স্পর্শনম্ পাপনাশনম্। অঘোর পাপ সংহারং বিল্ব পত্রং শিবার্পণম্।।

ত্রিদলং ত্রিগুণাকারং ত্রিনেত্রং চ ত্রিধায়ুধম্। ত্রিজন্মাপাপসংহারং বিল্বপত্রং শিবার্পণম্।।

গৃহাণ বিল্ব পত্রাণি সপুষ্পাণি মহেশ্বর। সুগন্ধীনি ভবানীশ শিবত্বংকুসুম প্রিয়।

Check Also

যে সব লক্ষণ দেখলে বুঝতে পারবেন আপনার জীবনে খারাপ সময় আসতে চলেছে

যে সব লক্ষণ দেখলে বুঝতে পারবেন আপনার জীবনে খারাপ সময় আসতে চলেছে – ধনসম্পত্তি এবং ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *