Thursday , January 27 2022

প্রতিদিন 10 ঘণ্টা ধরে স্ব-অধ্যায়ন করে আইপিএস অফিসার হয়েছেন নীহারিকা ভট্ট, আসুন জেনেনিই তার সফলতার গল্প।

লোকেরা প্রায়শই দেশপ্রেমের কথা বলে এবং দেশের সেবার উদাহরণ দেয়, তবে তাদের দেশপ্রেমের বাস্তবতা তখনই জানা যায় যখন তারা একটি ভালো বেতনের চাকরির প্রস্তাব পেয়ে বিদেশেই প্রতিষ্ঠিত হয়ে যায় এবং তাদের দেশ সেবার দাবিগুলি নিস্তেজ হয়ে যায়। তবে বিপরীতে, এমন কিছু লোকেরাও থাকেন যাদের কাছে অর্থ ও কর্মজীবনের চেয়ে দেশের সেবা সবচেয়ে বেশি মূল্যবান হয় এবং সুযোগ পেলেই তারা নিজেকে প্রমাণ করে দেখান।

এমনই একজন মহিলা হলেন নীহারিকা ভট্ট, যিনি বিদেশে মর্যাদাপূর্ণ চাকরি ছেড়ে আইপিএস সার্ভিসে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। এবং আই পি এস অফিসার হওয়ার জন্য কঠোর পরিশ্রমও করেছিলেন। আসলে এই নীহারিকা ভট্ট হলেন লখনউ এর বাসিন্দা ডাক্তার এমএল ভট্টের মেয়ে। তিনি জয়পুরিয়া স্কুলে পড়াশোনা করেছেন এবং তারপরে ইলেকট্রনিক্স এ ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রী নিয়ে বিদেশে ইঞ্জিনিয়ারিং এর কাজ শুরু করেছিলেন।

Check Also

দুধের চেয়ে স্বাস্থ্যের জন্য বেশি উপকারী বিয়ার! বলছে গবেষক

শারীরিক এবং মানসিক বিকাশের জন্য দুধের জুরি মেলা ভার। দুধের এই উপকারিতা দেখেই অধিকাংশ পরিবারে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page