Monday , December 5 2022

পাকা চুল হবে উধাও, থাকবে না খুশকির সমস্যা! সস্তার এই জিনিস সপ্তাহে ২ বার ব্যবহার করলেই হবে !

Rose Water Hair Benefits: ত্বকের যত্নে গোলাপ জল নিশ্চয়ই আপনি ব্যবহার করেন। গোলাপ জলের উপকারিতা আমরা সবাই জানি। কিন্তু চুলের যত্নে গোলাপ জল যে ব্যবহার করা যায়, তা কি আপনি জানতেন? চুল ভালো(Good Hair) রাখতে গোলাপ জলের জুড়ি হয় না। কিন্তু কীভাবে ব্যবহার করতে হয় এই গোলাপ জল? তা জেনে নিন এখনই। রইল বিস্তারিত…

ত্বকের যত্নে গোলাপ জল(Rose Water For Skin) দীর্ঘদিন ব্যবহার হয়ে আসছে। ত্বক ভালো রাখতে এক ফোঁটা গোলাপ জলই যথেষ্ট। এই কথা আমরা প্রায় সবাই জানি। বড় বড় তারকা থেকে কোনও মধ্যবিত্ত পরিবারের বিউটি সিক্রেট এই গোলাপ জলই। যাই হোক, এই গোলাপ জল আপনার ত্বক ভালো রাখতে যেমন ব্যবহার করা হয়। একইভাবে চুলের সমস্যা সমাধান করতেও একইভাবে কাজ করে গোলাপের জল(Rose Water For Hair), তা কি জানেন?

না না এই কথা শুনে চমকে যাওয়ার কিছুই নেই। এটাই সত্যি। দীর্ঘদিন ধরে চুলের কোনও সমস্যায়(Hair Problem Home Remedies) ভুক্তভোগী হলে এবার চুলের যত্নে গোলাপ জল ব্যবহার করুন এবং ফল দেখুন কয়েকদিনের মধ্যেই। প্রথমে জেনে নিন বাড়িতে কীভাবে বানিয়ে নেবেন গোলাপ জল
বাড়িতেই বানান গোলাপ জল(Rose Water), এভাবে…

আপনি পর্যাপ্ত পরিমাণে অরগ্যানিক গোলাপ নিন। তার সঙ্গে ডিসটিলড ওয়াটার এবং স্প্রে বোতলও সঙ্গে রাখুন।এবার গোলাপ ফুল থেকে পাপড়িগুলো ছাড়িয়ে নিন। একটি পাত্রে রাখুন। হালকা গরম জল করে নিন। তা দিয়ে গোলাপের পাপড়িগুলো ধুয়ে নিন।

গোলাপের পাপড়িতে যদি কোনও কৃত্রিম রং থাকে, তাহলে তা উঠে যাবে। এবার একটা বড় পাত্র নিন। তার মধ্যে ডিসটিলড ওয়াটার ঢেলে দিন। মিশিয়ে দিন গোলাপের পাপড়ি। ডিসটিলড ওয়াটারে যেন সব পাপড়ি ডুবে থাকে। পাত্রটিকে ঢাকা দিয়ে হালকা আঁচে গরম হতে দিন। একদম সিমে রাখবেন ওভেন। ২৫ মিনিট রাখতে পারেন। যতক্ষণ না ওই জলের রঙ হালকা গোলাপি হয়ে যায়, অপেক্ষা করুন।

এবার ওই পাত্রটি নামিয়ে জল ছেঁকে নিন। পাপড়িগুলো আলাদা করে নিন। এবার ঠান্ডা হতে দিন। কাচের বোতলে ভরে নিন। ঠান্ডা জায়গায় রাখুন। প্রয়োজন মতো স্প্রে বোতলে ভরে নিয়ে ব্যবহার করুন।
গোলাপ জল কেন এত উপকারী?

আসলে গোলাপ জল সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপাদান। আপনি যদি বাড়িতেই গোলাপ জল বানিয়ে নিতে পারেন, তাহলে তো আরও ভালো হয়। সেটা সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক। গোলাপ জলে আছে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল গুণ। এমনকী অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটরি উপাদানও আছে। সেই জন্যে স্ক্যাল্পে কোনও ইনফেকশন হলে তা সারিয়ে দিতে পারে গোলাপ জল। আবার স্ক্যাল্পের প্রদাহ কমাতেও সাহায্য করে।
আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করে। আর সেই কারণেই, স্ক্যাল্প ও চুলের আর্দ্রতা ধরে রাখতে ভালো কাজে আসে গোলাপ জল। তাই আপনার হেয়ার কেয়ার রুটিনে নিয়মিত গোলাপ জল ব্যবহার করেই দেখুন।

তার আগে জেনে নিন, কী কী কাজে আসে এই গোলাপ জল
রুক্ষ চুল সুন্দর হবে যেভাবে
শুষ্ক ও রুক্ষ চুল নিয়ে কি আপনার হয়রানির শেষ নেই? তাহলে এবার একটু স্বস্তি পেতে পারেন আপনি। কারণ, এরকম কিছু সমাধান বলে দিচ্ছি আমরা। রুক্ষ চুলের হাল ফেরাতে এই হেয়ার মাস্ক ব্যবহার করতেই পারেন আপনি। আপনার প্রয়োজন অ্য়ালোভেরা জেল।

সেটি পরিমাণ মতো একটি পাত্রে নিন। তার সঙ্গে দুই চামচ গোলাপ জল মিশিয়ে নিন। স্ক্যাল্পে ও চুলের গোড়ায় ভালো করে মেখে রাখুন। এবার শুকিয়ে গেলে চুল ধুয়ে নিন। সপ্তাহে তিনবার এই হেয়ার মাস্ক আপনি ব্যবহার করতে পারেন। চুলের রুক্ষতা কেটে যাবে। ঘন ও জেল্লাদার চুল পাবেন আপনিও।

খুশকির সমস্যায় নাজেহাল?
এই বর্ষা আসতেই চুলের নানা সমস্যা শুরু হয়ে যায়। বিভিন্ন ফাঙ্গাল ইনফেকশের কারণে আমাদের অনেকেই খুশকির সমস্যায় ভুগতে থাকি। যতই শ্যাম্পু করি না কেন, সেই খুশকির সমস্যা ফিরে ফিরে আসে। তাহলে করণীয় কী? আপনি গোলাপ জল ব্যবহার করতে পারেন।

গোলাপজলের মধ্যে লেবুর রস মিশিয়ে নিন। ভালো করে মিশিয়ে একটি মিশ্রণ তৈরি করুন। সেই মিশ্রণ স্ক্যাল্পে আঙুলের ডগা দিয়ে মালিশ করে নিন। ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন। তারপর শ্যাম্পু করে নিন। খুশকি দূর হবে।
সহজেই চুল পাকবে না আপনার
সময়ের সঙ্গে সঙ্গে প্রাকৃতিক নিয়মে চুল তো পাকবেই। কিন্তু সময়ের আগেই যদি আপনি এই সমস্যায় পড়েন? তাহলে তো মন খারাপ হওয়াই স্বাভাবিক। কিন্তু চুলের অকালপক্কতা রোধ করে এই গোলাপ জল। দুই চামচ পেঁয়াজের রস নিন।

তার সঙ্গে পরিমাণ মতো গোলাপ জল মিশিয়ে নিতে হবে। দুই উপাদান মিলিয়ে একটি সুন্দর মিশ্রণ তৈরি করুন। তা স্ক্যাল্পে ও চুলে মেখে নিন। এক ঘণ্টা রেখে দিন। তারপর চুলে শ্যাম্পু করে নিন। সপ্তাহে দুই থেকে তিনদিন আপনি এই মিশ্রণ ব্যবহার করতে পারেন। চুল ভালো থাকবে।

ডিসক্লেইমার: এই প্রতিবেদনটি কেবলমাত্র সাধারণ তথ্যের জন্য, এটি কোনও ওষুধ বা চিকিৎসার অঙ্গ নয় আরও বিস্তারিত জানতে হলে বিশেষজ্ঞের সঙ্গে পরামর্শ করে নিন।

Check Also

কাঁচা কলার নানা উপকারিতা

কাঁচা কলা অসাধারণ সব পুষ্টিগুণে ভরপর একটি সবজি। একাধিক নিরীক্ষায় দেখা গেছে যে, শুধু পেট ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.