Tuesday , July 5 2022

নিরামিষ দিনগুলির জন্য বাড়িতে রান্না করুন স্বাদে অতুলনীয় পালং ডাল! রইল রেসিপি ।

আপনারা একাধিকবার বিভিন্ন ধরনের ডাল রান্না করে থাকবেন । কখনো অরহরের ডাল কখনো মুগের ডাল কখনো আবার মুসুরির ডাল। কিন্তু এই রকম পদ্ধতিতে ডাল হয়তো খুব কম মানুষ রান্না করেছেন ।এই পদ্ধতিটির নাম হল ডালপালঙ্ক ।নাম শুনেই বুঝতে পারছেন যে ডালের সাথে পালংশাকের অতি অবশ্যই একটা যোগ রয়েছে।

এবং আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে আপনাদেরকে খুব সহজে কম সময়ে কিভাবে সুস্বাদু ডাল পালং তৈরি করা যায় তা জানাবো।আপনি এটা চাইলে মুগডাল কিংবা মুসুর ডাল অড়হর ডালের করতে পারেন ।প্রথমে ডাল গুলি গেম ভাল করে ভেজে নিতে হবে শুকনো কড়াই এ । তারপর তার মধ্যে দিতে হবে জল দুই থেকে তিনবার জল পালটি করে ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে ।

এরপর ধুয়ে ফেলা ডাল দিতে হবে প্রেসার কুকার এর মধ্যে। প্রেসার কুকার এর মধ্যে ডাল দিয়ে দেওয়ার পর তার মধ্যে দিতে হবে পরিমাণমতো জল ।এরপর প্রেসার কুকারের ঢাকনা লাগিয়ে তিন থেকে চারটি সিটি মেরে দিলেই ডাল সেদ্ধ হয়ে যাবে।এই সেদ্ধ ডালের মধ্যে আমরা পালংশাক যোগ করবো কিন্তু একটু পরে । তার আগে কড়াই কিছুটা পরিমাণ ঘি নেবো এবং তার মধ্যে দিয়ে দেবো গোলমরিচ গুঁড়া এবং কাঁচালঙ্কা তারপর।

তার মধ্যে যোগ করে দেবো কিছু কাঁচা লঙ্কা কুচি এবং কিছু আদাকুচি। সমস্ত উপকরণ গুলোকে ভাল করে ভেজে নেওয়ার পর তার মধ্যে যোগ করে দেবো টমেটো। টমেটো কুচি সামান্য পরিমাণের কাশ্মীরি লঙ্কাগুঁড়ো জিড়ে গুড়ো এবং আগে থেকে সেদ্ধ করে রাখা ডাল ।

সমস্ত উপকরণ গুলি কে বেশ ভাল করে নাড়িয়ে নেব এরপর তার মধ্যে যোগ করে দেবো আগে থেকে কেটে রাখা পালংশাক কাঁচা অবস্থায় পালংশাক গু-লি-কে যোগ করে দিতে হবে। তার পর ঢাকনা লাগিয়েই জল দিয়ে তিন থেকে চার মিনিট ভালো করে সেদ্ধ করে নিন তৈরি হয়ে যাবে সুস্বাদু ডাল পালং রেসিপি।

 

Check Also

রান্না বা ভাঁজার পুরাতন তেল পরিশুদ্ধ করার ঘরোয়া পদ্ধতি!

তেলে (oil) ভাঁজার পর তেলে (oil) তলানীতে অনেক সময় পোড়া অংশ পড়ে আবার অনেক সময় ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.