Friday , August 12 2022

জন্মাষ্টমীর দিন এই জিনিসটি অবশ্যই বাড়িতে রাখুন, সুখ ও সম্পদে ভরে উঠবে সংসার

জন্মাষ্টমীর দিন ছাড়া ভারতবর্ষজুড়ে ছোট্ট গোপালের আরাধনা করা হয়। কেউবা পুত্ররূপে আবার কেউবা ভগবান শ্রীকৃষ্ণকে অর্পণ করেন বিচিত্র নৈবেদ্য। কিন্তু জন্মাষ্টমীর ছোট্ট শ্রীকৃষ্ণকে সন্তুষ্ট করতে বাড়িতে অবশ্যই কিনে আনুন এই বিশেষ জিনিসটি। তাহলে আপনার সংসার সুখ সমৃদ্ধি এবং সম্পদে পরিপূর্ণ হয়ে উঠবে।। এটি হলো ময়ূর পুচ্ছ বা ময়ূরের পালক।

কেন কিনবেন ময়ূর পেখম ?

ময়ূরের পালক শ্রীকৃষ্ণের খুবই প্রিয়। জন্মাষ্টমীর দিন ময়ূরের পালক গৃহস্থবাড়িতে কিনে আনা এবং তা ছোট্ট শ্রীকৃষ্ণের সিংহাসনে রেখে দেওয়া অত্যন্ত শুভ কাজ। হিন্দু সংস্কৃতি অনুযায়ী, জন্মাষ্টমী শুভ লগ্নে বাড়িতে ময়ূরপুচ্ছ থাকলে গৃহস্থ বাড়ির মঙ্গল হয়। সুখ ও সম্পদে পরিপূর্ণ হয়ে ওঠে পরিবার এবং সমস্ত বাধা বিপত্তি কেটে যায়।

শ্রীকৃষ্ণ : মর্মকুটধারী

অনেক শ্রীকৃষ্ণ ভক্তবৃন্দের কাছেই ময়ূর পেখম অত্যন্ত ভক্তির জিনিস। রঙিন ময়ূর পেখম শোভাবৃদ্ধি করে শ্রীকৃষ্ণের মাথায়। মাথার মুকুটে ময়ূরের পেখম সজ্জিত থাকায় শ্রীকৃষ্ণকে ভক্তবৃন্দ মর্মকুটধারী বলে সম্বোধন করেন।

শ্রীকৃষ্ণের মুকুটে ময়ূরের পেখম কেন ?

শ্রীকৃষ্ণের মুকুটে থাকা ময়ূর পেখম নিয়ে প্রচলিত রয়েছে নানান পৌরাণিক কাহিনি। শ্রীকৃষ্ণের মধুর বাঁশির আওয়াজে গোকুলবাসী থেকে শুরু করে প্রকৃতি পর্যন্ত নেশায় মেতে উঠতো। বনের সমস্ত পশুপাখিরা তন্ময় হয়ে যেত বাঁশির সুর ধ্বনিতে।

এমনই একটা মনোরম দিনে, শ্রীকৃষ্ণের অপূর্ব মিষ্টি বাঁশির সুর শুনে সমস্ত প্রাণীরা উচ্ছ্বাসে নৃত্য শুরু করে দেয়। প্রাণীদের মধ্যে ছিল একদল ময়ূর। ময়ূরের দল বাঁশির সুরে এতটাই বিভোর হয়ে পড়ে যে বাঁশির সুর বন্ধ হলে তারা মূর্ছা যায়। ময়ূরের পালক সেই মুহূর্তে খসে পড়ে যায় মাটিতে। শ্রীকৃষ্ণ এই ঘটনা দেখে এগিয়ে আসেন। ময়ূরের দল তাদের পেখম গুলি গুরুদক্ষিণা হিসেবে দান করেন ভগবান শ্রীকৃষ্ণকে। অত্যন্ত ভাল বাসার সহিত শ্রীকৃষ্ণ সেই পেখম গুলিকে গ্রহণ করেন এবং স্থান দেন নিজের মুকুটে।

Check Also

এবারে জন্মাষ্টমী দুই দিন ধরে পালিত হবে, কোন দিন উপোস করা বেশি ভালো হবে !

Janmashtami 2022 date: হিন্দু ধর্মে কৃষ্ণ জন্মাষ্টমীর অনেক গুরুত্ব রয়েছে। ভগবান শ্রী কৃষ্ণের জন্মদিন কৃষ্ণ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.