Sunday , September 19 2021

কানের পাশে এইভাবে স্রেফ এক মিনিটের চাপ।তারপর যা ঘটবে অবাক হয়ে যাবেন

এই বিকল্প চিকিৎসাপদ্ধতিতে শরীরের কিছু গুরুত্বপূর্ণ অংশে (অ্যাকুপ্রেসার বিদ্যার মতে ‘প্রেসার পয়েন্ট’) চাপ সৃষ্টি করে বা ম্যাসাজের মাধ্যমে শারীরিক অসুবিধা থেকে রোগীকে মুক্তি দেওয়া হয়।অ্যাকুপ্রেসার বা রিফ্লেক্সোলজির নাম হয়তো শুনেছেন আপনি। এই বিকল্প চিকিৎসাপদ্ধতিতে শরীরের কিছু গুরুত্বপূর্ণ অংশে (অ্যাকুপ্রেসার

বিদ্যার মতে ‘প্রেসার পয়েন্ট’) চাপ সৃষ্টি করে বা ম্যাসাজের মাধ্যমে শারীরিক অসুবিধা থেকে রোগীকে মুক্তি দেওয়া হয়। অ্যাকুপ্রেসার মতে আমাদের শরীরের তেমন‌ই গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রেসার পয়েন্ট রয়েছে কানের ছিদ্রের ঠিক পাশে। এই অংশে একটি আঙুল দিয়ে স্রেফ এক মিনিট

যদি চেপে ধরে রাখা যায় তাহলেই মুক্তি মিলবে শরীরের কিছু গুরুতর সমস্যার হাত থেকে। প্রথমেই জেনে নেওয়া যাক, কী করতে হবে আপনাকে। যে কোনও কানের ছিদ্রটির পাশে উপরের ছবিটির মতো করে তর্জনী দিয়ে চেপে ধরুন। এবার আপনার মুখটা কয়েকবার হাঁ করুন এবং বন্ধ করুন।

দেখবেন, কানের পাশে যে জায়গাটা আঙুল দিয়ে চেপে ধরেছেন, নড়ছে সেই জায়গাটাও। মুখ খোলা-বন্ধ করার সময় যে জায়গাটা সবচেয়ে বেশি নড়বে, আঙুলটা রাখুন সেই জায়গায়। এবার এক মিনিট তর্জনী দিয়ে চেপে ধরে রাখুন ওই জায়গাটি। ব্যস্, তাহলেই আপনার কাজ শেষ। মনে রাখবেন, চাপের মাত্রা হবে মৃদু, খুব জোরে চেপে ধরবেন না। দিনে বার দু’য়েক এই অনু‌শীলন করবেন। চাইলে চার-পাঁচবার পর্যন্ত এটা করতে পারেন।

এবার জেনে নিন, এই অভ্যাসের ফলে শরীরের কী উপকার হবে। অ্যাকুপ্রেসার মতে, এই অংশের সঙ্গে প্রত্যক্ষ যোগ রয়েছে আমাদের পাচনতন্ত্রের বা পরিপাক প্রক্রিয়ার। ফলে কানের পাশে এইভাবে মিনিট খানেকের চাপের ফলে যে উপকারগুলি আপনি পেতে পারেন তা এরকম—

১. হজমশক্তির উন্নতি,

২. অম্বল, গ্যাস, বদহজম থেকে মুক্তি,

৩. কোষ্ঠবদ্ধতার সমস্যার সমাধান

৪. এবং হজম ঠিকঠাক হওয়ার কারণে মেদ এবং ভুঁড়ির হাত থেকেও মুক্তি। বিশ্বাস হচ্ছে না? বেশ তো, নিজেই যাচাই করে নিন না এই উপায়ের কার্যকারিতা। মাস খানেক অভ্যাস করলেই বুঝতে পারবেন ঠিক কতখানি উপকার পাচ্ছেন।

Check Also

পু’রুষত্ব ন’ষ্ট হতে পারে ৮টি অ’ভ্যাসে, ২ নাম্বারটা খাবেন না

সুস্থ থাকার জন্য চাই স্বা’স্থ্যকর জীবনপ’দ্ধতি। লি’’ঙ্গ সুস্থ রাখতেও তাই ত্যাগ করতে হবে বদভ্যাস। সঠিক ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *