Monday , September 27 2021

টানা সাতদিন যদি ডাবের জল খান তাহলে শরীরে কি অ’বাক করা পরি’বর্তন ঘট’বে জানেন.?

গরমে হাসফাস কিংবা ক্লান্তি ঝেড়ে ফেলে তাজা হওয়ার জন্য প্রাকৃতিক যে পানীয়টির কথা আমাদের মাথায় আসে সেটি হল ডাবের জল। এই ডাবের জল পান করলে শরীরের অনেক কষ্ট হ্রাস পায় ও এক আলাদা তৃপ্তি আসে। ভারতের সব জায়গাতেই মোটামুটি ডাব গাছ দেখা যায়। তবে কেরালা এই গাছের জন্য বিখ্যাত।

আসলে মাটি আর মনোরম আবহাওয়ার উপর ভিত্তি করে ডাবের ফলন হয়। লবনাক্ত মৃত্তিকায় ডাবের ফলন বেশি হয়। ডাব কোন দোকানে কিংবা ফ্রিজে ঠান্ডা পানীয় হিসাবে পাওয়া যায় না। বিক্রেতারা রাস্তার ধারেই কেটে তা পান করতে দেয়।

আর যাদের বাড়িতে গাছ আছে তারা তো যখন খুশি পেড়ে পান করতেই পারে। জল ছাড়া ডাবের ভীতরের শাঁসটাও খেতে খুব সুস্বাদু। আবার ডাবের ছোবড়া শুকনো করে জ্বালানি হিসাবে ব্যবহার করা হয়। সব মিলিয়ে ডাবের সমস্ত অংশই আমাদের উপকারে লাগে।

আসুন এই ডাবের কিছু উপকারিতা জেনে নেওয়া যাক, আর ডাব টানা সাতদিন খেলে কি উপকার হয় সেটাও।

১. ডাবের জল শুধু তৃষ্ণা মেটায় না, কিছু কিছু রোগের মহাঔষধ হিসাবে কাজ করে এই জল। কিডনিতে পাথর, আলসার, গ্যাস্ট্রাইটিস, মূত্রনালীর সংক্রমণ, ডাইরিয়া ইত্যাদি রোগে ঔষধের পাশাপাশি ডাক্তাররা ডাবের জল পান করার পরামর্শ দেন।

২. আমরা কেটে গেলে আন্টি সিপিটিসি লাগাই কিংবা ওষুধ খাই। কিন্তু কোন কাটা স্থান যদি ডাবের জল দিয়ে ধুয়ে ফেলা হয় তবে সেই ডাবের জল স্যাভলন, ডেটলের থেকেও ভালো কাজ করে বলে জানিয়েছেন ডাক্তাররা।

৩. ডাবের জলে পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, ভিটামিন সি, কার্বোহাইড্রেট সহ নানান উপকরন থাকে তাই পান করার পাশাপাশি যদি ডাবের জল দিয়ে মুখ ধোয়া যায় তাহলে কোন রাসায়নিক ক্রিম ব্যবহার ছাড়াই মুখের ব্রন, পক্স ইত্যাদির মতো দাগ থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে।

৪. ডাবের জল নিয়মিত পান করলে শরীরের অপ্রয়োজনীয় মেদ ঝড়ে যায়। ফলে আপনি অত্যাধিক ওজনের হাত থেকে মুক্তি পেতে পারেন বা ওজন ঝড়িয়ে ফেলতে পারবেন।

৫. আর ডাবের জল যেমন তৃষ্ণার্ত মানুষকে রিফ্রেশ করে তেমন সেলাইনের বদলে ডাবের জল ব্যবহারও লাভজনক।

৬. ডাবের জল একটি স্পোর্টস ড্রিঙ্কের থেকেও বেশি লাভদায়ক। এতে প্রচুর পরিমানে পটাশিয়াম ও খনিজ পদার্থ থাকে, একটি কলাতেও যা পাওয়া যায় না। তাই স্পোর্টস ড্রিঙ্কের থেকে ডাবের জল বেশি লাভদায়ক ও উপকারী।

৭. ডাবের জলে প্রতি ১০০ গ্রামে ১৬.০৭ ক্যালোরি শক্তি থাকে। এছাড়াও ডাবের ভিতরে যে শাঁস থাকে তা থেকেও প্রচুর ক্যালোরি শক্তি পাওয়া যায়। তাই ডাবের শাঁস শুধু পেটই ভরায় না, শরীরের ক্ষমতাকেও বাড়িয়ে দেয়।

এই সব কারনেই ডাবের দাম দিন দিন বেড়েই চলেছে। একটি ডাবের দাম বর্তমান বাজারে ২০-৫০ টাকা। মানুষ শরীরকে স্বতেজ রাখার জন্য তা কিনতে বাধ্য হয়। তাই আপনিও দেরি করবেন না, শরীরের নানান সমস্যা দূর করতে টানা সাতদিন ডাবের জল পান করুন। তবে নিয়মিত খাওয়ার আগে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

Check Also

পু’রুষত্ব ন’ষ্ট হতে পারে ৮টি অ’ভ্যাসে, ২ নাম্বারটা খাবেন না

সুস্থ থাকার জন্য চাই স্বা’স্থ্যকর জীবনপ’দ্ধতি। লি’’ঙ্গ সুস্থ রাখতেও তাই ত্যাগ করতে হবে বদভ্যাস। সঠিক ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *