Saturday , January 28 2023

ঋষভের দুরন্ত সেঞ্চুরিতে ব্রিটিশ বধ টিম ইন্ডিয়ার !

টি-২০ সিরিজের পর এবার একদিনের সিরিজও নিজেদের পকেটে পুরে ফেলল টিম ইন্ডিয়া। তিন ম্যাচের এই ওডিআই সিরিজের তৃতীয় তথা অন্তিম ম্যাচটি ম্যাঞ্চেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ড…

টি-২০ সিরিজের পর এবার একদিনের সিরিজও নিজেদের পকেটে পুরে ফেলল টিম ইন্ডিয়া। তিন ম্যাচের এই ওডিআই সিরিজের তৃতীয় তথা অন্তিম ম্যাচটি ম্যাঞ্চেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ড স্টেডিয়ামে আয়োজন করা হয়েছিল। টিম ইন্ডিয়ার টপ অর্ডার খানিক পিছলে গেলেও হার্দিক পান্ডিয়া এবং ঋষভ পন্থ দলের হাল ধরে নেন। ঋষভের দুরন্ত শতরান ভারতের মুখে শেষপর্যন্ত হাসি ফুটিয়েছে। শেষপর্যন্ত পাঁচ উইকেটে রোহিত ব্রিগেড এই ম্যাচে জয়লাভ করেছে।

রবিবারের ম্যাচটা ছিল একেবারে কাঁটে কি টক্কর। তিন ম্যাচের এই ওডিআই সিরিজে প্রথমে তো ওভালে ১০ উইকেটে ইংল্যান্ডকে কার্যত উড়িয়ে দিয়েছিল টিম ইন্ডিয়া। কিন্তু দ্বিতীয় ম্যাচে দুরন্ত প্রত্যাবর্তন করেছিল ইংল্যান্ড। ১০০ রানে ভারতকে হারিয়ে আবারও তারা সিরিজে কামব্যাক করে। ফলে তৃতীয় ম্যাচটা যে দল জিতত, সিরিজ যে তাদেরই পকেটে যেত সেটাই স্বাভাবিক ছিল। এই পরিস্থিতিতে টিম ইন্ডিয়া নিজেদের নার্ভ শেষ পর্যন্ত ধরে রাখে এবং শেষ হাসিটা তারাই হাসে।

রবিবার টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক রোহিত শর্মা। কারণ ছিল একটাই। উইকেটের উপরিভাগ ছিল যথেষ্ট শক্ত। এখানে বল পড়ে যে খুব সহজেই ব্যাটারের কাছে আসবে সেটা তিনি আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন। তবে ম্যাচের আগে কিছুটা হলেও ধাক্কা খেয়েছিল টিম ইন্ডিয়া। কারণ। এই ম্যাচে জসপ্রীত বুমরাহ চোটের কারণে খেলতে পারেননি। তাঁর পরিবর্তে টিম ইন্ডিয়ার প্রথম একাদশে সুযোগ পেয়েছিলেন মহম্মদ সিরাজ।

টিম ইন্ডিয়া রবিবার বল হাতে দুর্ধর্ষ পারফরম্যান্স করে। মাত্র ৪৫.৫ ওভারে ২৫৯ রান করেই অলআউট হয়ে যায়। ইংল্যান্ডের হয়ে জস বাটলার সবথেকে বেশি ৬০ রান করেছেন। অন্যদিকে জেসন রয় ৪১ এবং মঈন আলি ২৪ রান করেছেন। এছাড়া ক্রেগ ওভারটন ৩২ এবং লিয়াম লিভিংস্টোন ২৭ রানের গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস উপহার দেন। ভারতের হয়ে হার্দিক পান্ডিয়া দুরন্ত বোলিং করলেন এবং চার উইকেট শিকার করলেন। অন্যদিকে যুজবেন্দ্র চাহাল তিনটি এবং মহম্মদ সিরাজ জোড়া উইকেট শিকার করেছেন।

এরপর শুরু হয় ভারতের ব্যাটিং। টিম ইন্ডিয়ার টপ অর্ডার কিন্তু একেবারেই আহামরি পারফরম্যান্স করতে পারেনি। রোহিত শর্মা এবং বিরাট কোহলি দুজনেই ১৭ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান। এছাড়া শিখর ধাওয়ান ১ এবং সূর্যকুমার যাদব ১৬ রান করে ফিরে গেলেন। অবশেষে হার্দিক পান্ডিয়ার সঙ্গে জুটি বাঁধলেন ঋষভ পন্থ। ভারতের পঞ্চম উইকেটে ১৩৩ রানের পার্টনারশিপ গড়ে উঠল। ৫৫ বলে ৭১ রান করে হার্দিক যখন ফিরছেন ততক্ষণে এই ম্যাচের ভবিষ্যত লেখা হয়ে গিয়েছে। শেষপর্যন্ত ১১৩ বলে ১২৫ রান করে অপরাজিত থাকলেন ঋষভ। আর সেইসঙ্গে ৪৭ বল বাকি থাকতেই এই ম্যাচে জয়লাভ করল ভারতীয় ক্রিকেট দল।

Check Also

মাকে বাঁচাতে নিজের কিডনি বিক্রি করতে চান মেহেদী ! ভিডিওটি দেখলে চোখের জল আটকাতে পারবেন না !

মায়ের চিকিৎসার টাকা জোগাড় করতে ঢাকার পথে পথে ঘুরছেন শেরপুরের তরুণ মেহেদী হাসান হিমেল। নিজের ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.