Friday , September 17 2021

ভুলেও এই দুটি ফল একসাথে কখনো খাবেন না, খেলে জন্ম হবে হিজরা সন্তান

হিজড়া কারা? সাধারণত আম’রা বিভিন্ন রাস্তার মোড়ে বা ট্রেনে দেখি একদল মে’য়ে ‘ অ্যাই টাকা দে, টাকা দিবি না?’ এমন বলে টাকা তোলে। এরা হিজড়া হয়। সমাজে তাদের হি’জড়া, বা তৃ’তীয় লি’ঙ্গ বা ন’পুংসক ইত্যাদি নানারকম নামে সমাজ তাদের ডাকে। জ’ন্মের সময় কিন্তু ওরা এমন থাকে না।

ক্রমশ বড় হওয়ার সাথেই সাথেই ওদের এই ল’ক্ষণ গুলো প’রিলক্ষিত হয়। হিজড়ারা সমাজের সবচেয়ে অ’বহেলিত জনগোষ্ঠী। শুধুমাত্র শারিরীক কিছু প্র’তিবন্ধকতার জন্য ওরা সমাজের কাছে অবহেলিত। হি’জড়াদের সেই সমস্ত দরকারি সুযোগ সুবিধা গুলোও দেওয়া হয় না, যেগুলো আর ৫ টা সাধারণ মানুষ পেয়ে থাকে।

আর ঠিক এই কারণেই বাসে ট্রেনে, রাস্তা ঘাটে সাধারণ মানুষকে হয়রান হতে হয় .এদের হাতে। আজ আম’রা এই প্রতিবেদনে জানবো যে, এমন দুটি ফল আছে, যেগুলো একসঙ্গে খেলে হিজড়া সন্তানের জন্ম হয়। কি সেই ফল দুটো। আজ আম’রা এই প্রতিবেদনে সেটাই জানবো। আসুন দেখে নিই বিস্তারিত।

ফল আমাদের শ’রীরের জন্য খুবই ভালো। শ’রীরের উ’পকারের জন্য আম’রা সকল সময়েই কোন না কোন ফল খেয়ে থাকি। কিন্তু কিছু ফল এমন আছে যেগুলো একসঙ্গে খেলে আপনার হি’জড়া সন্তানের জন্ম হতে পারে। কই সেই ফল দুটি?

ফলদুটি হচ্ছে, আ’মলকি আর লিচু। আমলকি আর লিচু যদি একসাথে খাওয়া হয় তাহলে আপনারও হি’জড়া সন্তানের জন্ম হতে পারে। এর পিছনে কারণ হিসেবে লুকিয়ে আছে কিছু পৌ’রাণিক তথ্য। আসুন দেখে নিই কি সেই কারণ। পৌরাণিক কারণ মতে বলা হয় যে, একবার কিনসু নামের একটি মে’য়ে একসঙ্গে আ’মলকি আর লিচু ভগবান গির্বাকে নিবেদন করেছিলেন।

কিন্তু গির্বা তো আমলকি আর লিচু একসাথে খান না, তাই তখন তিনি রে’গে গিয়ে অ’ভিশাপ দিয়েছিলেন যে, আমা’র সাথে এমন মশকরা করা, তাই এই ফলদুটি যে একসাথে খাবে, তারই হি’জড়া সন্তান জন্ম হবে। তখন থেকেই এটি প্রচলিত হয়ে গেছে যে,একইসাথে এই দুটি ফল অর্থাত্‍ আ’মলকি ও লিচু খেলে হি’জড়া স’ন্তানেরজন্ম হবেই।যেহেতু হি’জড়া দের সামাজিক অ’ভিশাপ বলে মনে করা হয়, এবং আম’রা কেউই চাই না যে আমাদের হিজড়া সন্তানের জন্ম হোক, তাই এই দুটি ফল একইসাথে কখনোই খাবেন না এবং ভগবান গির্বার পুজোয় নিবেদন করবেন না।

Check Also

প্রেমিকের কথায় স্বামী-সন্তান ছেড়ে বি’পাকে প্রবাসীর স্ত্রী!

শরীয়তপুর সদর উপজেলায় বিয়ের দাবিতে এক ইতালি প্রবাসী যুবকের বাড়িতে অনশন করছেন এক নারী। শুক্রবার ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *