Saturday , January 28 2023

অন্য পাখির মত এবার কাককে পোষ মানিয়ে রেকর্ড গড়লেন যুবতী, শুনছে সব কথা থাকছে সবার সাথে, তুমুল ভাইরাল ভিডিও।

মানুষ সামাজিক জীব। বেঁচে থাকার জন্য তার গড়ে তুলেছে এই সমাজ ব্যবস্থা। এই সমাজ ব্যবস্থায় মানুষ একে অপরের উপর নির্ভরশীল। তাই মানুষে মানুষ গড়ে উঠেছে নিবিড় সম্পর্ক। এছাড়াও অন্যান্য পশু পাখিদের সাথে মানুষের রয়েছে নিবিড় সম্পর্ক। পশু পাখির সাথে মানুষের সম্পর্ক সৃষ্টির শুরু থেকেই। সৃষ্টির শুরুতে মানুষ যখন প্রতিকূল পরিবেশে বসবাস করত তখন থেকেই টিকে থাকার প্রয়োজনে পশু পাখির সাথে বন্ধুত্ব শুরু করে। মানুষ গরু ঘোড়া ছাগলকে পোষ মানাতে শুরু করে এবং তাদেরকে নানা কাজে ব্যবহার শুরু করে। যেটা এখনো চলমান।

বর্তমানে আমাদের মধ্যে অনেকেই বাড়িতে কুকুর বিড়াল পোষে থাকি। গ্রামাঞ্চলে গেলে প্রায় সব বাড়িতেই গরু লালন পালন করতে দেখা যায়। এটা প্রাচীন রীতি। এসব গৃহপালিত পশু ছাড়া আকাশে উড়ে বেড়ানো পাখিকে পোষ মানাতে দেখা যায় মানুষকে। অনেকেই নানা প্রজাতির পাখি খাচায় পুষে থাকে এবং তাদের মানুষের মত কথা বলানোর ট্রেনিং দিয়ে থাকে। যদিও এভাবে খাঁচায় পাখি পোষা সভ্য সমাজে কাম্য নয়। পাখির স্বাভাবিক ধর্ম হচ্ছে মুক্ত আকাশে উড়ে বেড়ানো।

এটা প্রাকৃতিক সৌন্দর্য তাই কখনো পাখিকে খাঁচায় বন্দী করা উচিত নয়। পাখি পরিবেশের সৌন্দর্য বাড়িয়ে তোলে। তাই অনেকে বাড়িতে পাখিকে খাঁচায় বন্দী না করেও লালন-পালন করে। ছোটবেলা থেকেই পাখিকে পোষ মানায় নিজের বাড়িতে। পোষ মানানো পাখি কে খোলামেলা জায়গায় ছেড়ে রাখা হয়। এসব পাখির সাথে নিবিড় সম্পর্ক গড়ে উঠলে তারা কখনো উড়ে যায় না। সম্প্রতি এ রকমই একটা পাখিকে পোষ মানানোর ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইউটিউবে।

আমরা ইতিপূর্বে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইউটিউবে নানা ধরনের পাখিকে পোষ মানানোর ভিডিও ভাইরাল হতে দেখেছি। যেমন টিয়া পাখির গান গাওয়ার ভিডিও। ময়না পাখির মানুষের মত কথা বলার ভিডিও। তবে সম্প্রতি যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে তাই এসব ভিডিও থেকে কিছুটা হলেও আলাদা। কেননা ভাইরাল হওয়া ভিডিও টিতে এটি কাক কে কথা বলতে দেখা যাচ্ছে। যা সচরাচর দেখা যায় না।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইউটিউবে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে গ্রামে পুকুরের ধারে একটি বাড়িতে দুজন সাংবাদিক প্রবেশ করছেন। তাদের বাড়িতে আসার উদ্দেশ্য হলো কথা বলা কাক কে দেখা। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে কাকটি ঘরের মধ্যে বাসের উপর বসে আছে। কাকটির নাম রাখা হয়েছে কামিনী। কাকটি অন্য দশ বারোটা কাকের মতই তবে এর স্বভাব এবং চালচলন কিছুটা বিচিত্র।

কারণ কাকটি মানুষের মত কথা বলতে পারে এবং মানুষের কাঁধে চড়ে ঘুরে বেড়ায়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড হওয়ার সাথে সাথে মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল হয়েছে ভিডিওটি। নেট দুনিয়ার নেটিজেনরা নানা রুপ মন্তব্য করছেন কমেন্ট সেকশনে। শেয়ার হচ্ছে দ্রুতগতিতে।

Check Also

জঙ্গলে সাপ ধরতে এসে চরম বিপদে সাপুড়ে। সাপুড়ে কে নাস্তানাবুদ করে ছেড়ে দিলে জঙ্গলের দুই কিং কোবরা। যা ইন্টারনেটে তুমুল ভাইরাল ভিডিও

আমরা সকলেই জানি সাপ একটি ভয়ঙ্কর প্রাণী। সাপের কামড়ে মানুষ মারা যায়। পৃথিবীতে এমন অনেক ...

Leave a Reply

Your email address will not be published.